আবারও সেই পৈশাচিক কর্মকান্ড, এবার পাবনার দুর্গম চরে বৃদ্ধকে ফেলে গেল স্বজনরা

প্রকাশিত: ১০:৪০ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ২৩, ২০২০

আবারও সেই পৈশাচিক কর্মকান্ড, এবার পাবনার দুর্গম চরে বৃদ্ধকে ফেলে গেল স্বজনরা

মহামারীর এই চরম বিপর্যয়ের মধ্যে পাবনায় ঘটেছে আরেক অমানবিক ঘটনা। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার উপসর্গ থাকায় বেড়া উপজেলার যমুনা নদীর দুর্গম চরে মানসিক ভারসাম্যহীন এক বৃদ্ধকে (৭০) ফেলে রাখার ঘটনা ঘটেছে।

গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় এই বৃদ্ধকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইসোলেশন সেন্টারে পাঠিয়েছেন বেড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আসিফ আনাম সিদ্দিকী। মঙ্গলবার তার শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

মানসিক ভারসাম্যহীন হওয়ায় বৃদ্ধ নিজের নাম-পরিচয় জানাতে পারেননি ইউএনও। উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, শনিবার বিকালে যমুনা নদীর দুর্গম চর চরসাফুল্লা গ্রামে ওই বৃদ্ধকে ঘোরাফেরা করতে দেখেন স্থানীয়রা।

মানসিক ভারসাম্যহীন হওয়ায় তিনি চরবাসীকে তার পরিচয় জানাতে পারেননি। তিনি কীভাবে ওই চরে এলেন তাও বলতে পারেননি। রোববার ওই বৃদ্ধ চরের এক ব্যক্তির বাড়ির সামনে গিয়ে মাটিতে ঢলে পড়েন।

স্থানীয় গ্রামবাসী ও ইউপি চেয়ারম্যানের কাছ থেকে খবর পেয়ে ইউএনও, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাকে এ ব্যাপারে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে বলেন।

এরপর বিকালে ওই গ্রামে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কয়েকজন মাঠকর্মী গিয়ে ওই বৃদ্ধকে চিকিৎসা দিয়ে আসেন। এতে অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় সোমবার ইউএনও আসিফ আনাম সিদ্দিকী ও উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা সরদার মো. মিলন মাহমুদ একটি মেডিকেল টিম নিয়ে সেখানে যান।

বৃদ্ধকে সেখান থেকে উদ্ধার করে বেড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি করানো হয়। ইউএনও আসিফ আনাম সিদ্দিকী বলেন, আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে অসুস্থ বৃদ্ধকে উদ্ধার করে আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করেছি।

তাকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। মঙ্গলবার তার শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ওই বৃদ্ধ কিছুটা মানসিক ভারসাম্যহীন হওয়ায় নিজের পরিচয়, কিংবা কিভাবে চরে এলেন জানাতে পারেননি।

তিনি বলেন, তার শরীরে জ্বর রয়েছে। স্থানীয়দের ধারণা করোনা আতঙ্কে স্বজনরা কোনো নৌকা থেকে তাকে নামিয়ে ওই চরে ফেলে গেছে। প্রসঙ্গত, সম্প্রতি টাঙ্গাইলের সখিপুরের জঙ্গলে করোনা উপসর্গ থাকায় এক বৃদ্ধ মাকে ফেলে রেখে যান।

Sharing is caring!