তাড়াশের মসজিদ,মাদ্রাসা ও কবরস্থানের কোটি টাকা লোপাটের অভিযোগ!

প্রকাশিত: ১১:৫৫ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১, ২০২১

তাড়াশের মসজিদ,মাদ্রাসা ও কবরস্থানের কোটি টাকা লোপাটের অভিযোগ!


লুৎফর রহমান, তাড়াশঃ-

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে দিঘীসদগুনা গ্রামের প্রধান মাতব্বর রজব আলী ফকিরের বিরুদ্ধে মসজিদ মাদ্রাসা,ও কবরস্থানের কোটি টাকা লোপাটের অভিযোগ উঠেছে।
প্রতিকার চেয়ে উপজেলা নির্বাহীর অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন গ্রামের পক্ষে বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আফসার আলী।

অভিযোগে সুত্রে জানা যায়,উপজেলা মাগুড়া বিন ইউনিয়নের দিঘিসদগুনা গ্রামের প্রধান মাতব্বর রজব আলী ফকির,প্রভাব খাটিয়ে ২০০৪ ইং সাল হতে মসজিদ, মাদ্রাসা, কবরস্থান গ্রামের ২০.৬২ পুকুর গুলো নিজ পছন্দ মাফিক লোকদের মাঝে ইজারা দিয়ে প্রায় ২ কোটি এগারো লক্ষ টাকা লুটপাট করে।

২০১৬ সালে জনসাধারণের চাপে ব্যাংকে টাকা রাখার সিদ্ধান্ত হলে রজব আলী ফকির নিজে ও আব্দুল হামিদ প্রামানিকের এর নামে পূবালী ব্যাংক লিমিটেড তাড়াশ শাখায় একটি সঞ্চয় হিসাব খোলেন। প্রথম অবস্থায় সামান্য কিছ ুটাকা উক্ত হিসাবে জমা করলে ও পরবর্তীতে ব্যাংকে টাকা জমা না করে আরো সহযোগী নিয়ে ভাগ বাটোরার মাধ্যমে গ্রামের টাকা লুটপাট করে ।

গত ৭/৮ মাস পূর্বে বীর মুক্তিযোদ্ধা আফছার আলী গ্রামবাসীর পক্ষে হিসাব নিকাশ দাখিলের জন্য রজব আলী ফকিরকে অনুরোধ জানান। রজব আলী ফকির হিসাব নিকাশ প্রর্দশন না করে টালবাহানা করতে থাকেন। গত ২৮/০২/২০২১ ইং তারিখে আনুমনিক সকাল ০৯.৩০ ঘটিকার সময় দিঘীসদগুনা বাজারে বীর মুক্তিযোদ্ধা আফছার আলী ও রজব আলী ফকিরের মধ্যে গ্রামের হিসাব নিকাশ নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে রজব আলী ফকির এর নির্দ্দেশে তার লোকজন বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আফছার আলী উপর চড়া ও হয়।

এতে তিনি গুরত্বর আহত হোন। এ ঘটনা নিয়ে পরবর্তীতে জাতীয় সংসদ অধ্যাপক ডাঃ মোঃ আব্দুল আজিজের হস্তক্ষেপে উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ মনিরুজ্জামান মনি তাঁর স্বারকনং-উপতা/ ২০২১- ১৭ তারিখ ২৭/০৬/২০২১ ইং এর মাধ্যমে ২০০৪ ইং সাল হতে গ্রামের আয় ব্যায়ের হিসাব নিকাশ দাখিলে জন্য রজব আলী ফকির ও ইদ্রিস আলী মেম্বর কে নোটিশ প্রদান করেন।

এ যাবৎ তারা কোন হিসাব দাখিল করেন নি। অভিযুক্ত দিঘীসদগুনা গ্রামের প্রধান মাতব্বর রজব আলী ফকির বলেন, তার বিরুদ্ধে অভিযোগ সত্য নয়, ষড়যন্ত্র মাত্র।
এ প্রসঙ্গে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মেজবাউল করিম বলেন, লিখিত অভিযোগ পেয়েছেন। প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Sharing is caring!

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ